Print

আইএমও ২০১২-এর বাংলাদেশ দলের নাম ঘোষণা

আগামী ৪-১৬ জুলাই আর্জেন্টিনায় অনুষ্ঠেয় ৫৩তম আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের (আইএমও) বাংলাদেশ দলের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। এবার ৫ জন প্রতিযোগী বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছে। এর আগে আজ বিকেলে ঢাকায় বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় দল ঘোষনার আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সহ-সভাপতি অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবাল, কোষাধ্যক্ষ আব্দুল কাইয়ুম, সদস্য অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ, সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান, কোচ ড. মাহবুব মজুমদার, সমন্বয়ক বায়েজিদ ভূঁইয়া জুয়েল উপস্থিত ছিলেন। এবারের দলে নির্বাচিত সদস্যরা হলেন ধনঞ্জয় বিশ্বাস (চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ), মির্জা মো. তানজিম শরীফ মুগ্ধ (নটরডেম কলেজ), সৌরভ দাস (ঢাকা কলেজ), নূর মোহাম্মদ শফিউল্লাহ (মনিপুর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়) এবং আবিদ হাসান (ময়মনসিংহ জেলা স্কুল)।
উল্লেখ্য, আইএমও দলের বাচাই প্রক্রিয়া শুরু হয় গত ১৬ ডিসেম্বর ২০১১ দিনাজপুর ও কুস্টিয়া আঞ্চলিক উৎসবের মধ্য দিয়ে। এ প্রক্রিয়া শেষ হয় ১০ ও ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১২ তে অনুষ্ঠিত জাতীয় গণিত উৎসবের মধ্য দিয়ে। পরবর্তীতে নির্বাচিত ৪০ শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহনে অনুষ্ঠিত হয় ৮ম বাংলাদেশ গণিত ক্যাম্প। এছাড়াও এশিয়া-প্যাসেফিক গণিত অলিম্পিয়াডের (এপিএমও) ফলাফল, অনলাইন ক্যাম্প এবং সর্বশেষ বর্ধিত ক্যাম্পের ফলাফলের ভিত্তিতে বাংলাদেশ দল নির্বাচিত করা হয়।
বাংলাদেশ দলের সবার জন্য শুভ কামনা।

Published on : http://www.prothom-alo.com/detail/date/2012-06-03/news/262715

Print

২য় লীলাবতী গণিত ক্যাম্প ২০১২

আগামী  ১৭ থেকে ২৩ জুন ২০১২  ঢাকার আদাবরে পদক্ষেপ ইনস্টিটিউট অব ডেভলপমেন্ট ম্যানেজমেন্ট ২য় লীলাবতী গণিত ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হবে।  ক্যাম্পে দশম বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড থেকে বাছাইকৃত প্রায় ২৫ জন শিক্ষার্থী অংশ নিবত পারবে। বাছাই প্রক্রিয়া চলছে, চুড়ান্ত দল নিবার্চিত হলে আমরা ব্লগে ঘোষনা করব। ক্যাম্পটি পরিচালনা করবেন ২০০৯ সালে ৫০তম আইএমওতে-ব্রোঞ্জ বিজয়ী নাজিয়া চৌধুরী।

Print

আজ শেষ হলো বধির্ত গণিত ক্যাম্প

আজ  শেষ হলো বর্ধিত গণিত ক্যাম্প ২০১২। দুপুরের খাবের পর এক এক করে নিজ বাড়িতে ফিরে গেছে ক্যাম্পারা । এর আগে ০১ মে বিকালে  শুরু হলেও   সন্ধ্যায় মুনির হাসান ভাইয়ের উপস্থিতিতে পরিচিতি পর্ব ও প্রাথমিক আলোচনার মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক শুরু ক্যাম্পের। আলোচনা পর্বে অনেক বিষয়ের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল- অষ্টম বাংলাদেশ গণিত ক্যাম্পের পর বর্ধিত ক্যাম্পে আসা পর্যন্ত বাসায় কে কি প্রাকটিস করেছে, নিজ এলাকার শিক্ষার্থীদের নিয়ে কেউ কিছু করেছ কি না ম্যাথ ক্লাব টাইপের, ফোরামে কে কি আলোচনা করেছে, বাসায় প্রাকটিসের সময় কোন  প্রবলেমে পড়েছে কি না ইত্যাদি । আলোচনার এক সময় মুনির ভাই কার জিবনের লক্ষ কি জানতে চায় ? এই আলোচনায় কেউ বুয়েটে ভর্তি, কেউ ফিজিক্স, কেউ কেমেস্ট্রি, কেউ ডাক্তার , কেউ গণিত নিয়ে পড়তে চায় ইত্যাদি বলেছে । এর মধ্যে মজার বিষয ছিল সৌরভ বলছিল সে হবে রাজনীতিবিদ, দারুন মজা পায় সবাই । স্বল্প সময়ের এই ক্যাম্পে প্রায় পাচটি পরীক্ষা, ক্লাস ও আলোচনা হয় । হরতালের জন্য প্রথম দিন থেকে জোবায়ের ক্যাম্পে যোগ না দিলেও ২ তারিখে কুষ্টিয়া থেকে এসে যোগ দিয়েছে সে। উর্মিও দিনাজপুর থেকে গত পরশু যোগ দিয়েছে। এদিকে নাভেদতো ছিলই।  এছাড়াও একাডেমিক দলের বিভিন্ন সময়ে  অভিক রায়, তুষার চক্রবর্তী, সকাল রায়, সুদিপ্ত, তমাল বিভিন্ন সময়ে যোগ দিয়েছে ক্যাম্পে। এদিকে ব্যবস্থাপনা দলের রকি ছিল প্রথম দুই দিন ।আর সুমন আর রতন ছিল পুরো সময়। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে যোগ দিয়েছে- বকুল, ফেরদৌস এবং সবসময়ের প্রধান সহযোগী আমাদের আইযুব ভাই। এইচ এস সি পরীক্ষার জন্য প্রথম থেকে উপস্থিত না হতে পারলেও একদিন আগে এসে যোগ দিয়েছে- ধনঞ্জয়, মুগ্ধ ও স্নিগ্ধ। এবং বিভিন্ন সময়ে উপস্থিত হয়েছেণ , ফোনে, মেইলে যোগাযাগ রেখেছেন বাংলাদেশ গণিত দলের কোচ ড. মাহবুব মজুমদার স্যার।

Print

পাই দিবস উদ্যাপন

pai Dayপাইয়ের মান নির্ণয়, পাই নিয়ে কিছু কথা আর সবশেষে পাই কেক কাটার মধ্য দিয়ে ১৪ মার্চ বিশ্ব পাই দিবস ২০১২ উদ্যাপন করল বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি। বিকেল পাঁচটায় অষ্টম বাংলাদেশ গণিত ক্যাম্পে দিবসটি উদ্যাপন করা হয়। ২০০৬ সাল থেকে শুরু করে বাংলাদেশ বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতি প্রতিবছর ‘পাইয়ের মতো সুন্দর হোন’ স্লোগানে গণিতের ভালোবাসা ও সৌন্দর্য সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে পাই দিবস উদ্যাপন করে থাকে। সংগঠনটি টানা সপ্তমবারের মতো ‘পাই দিবস’ পালন করে। অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান জনপ্রিয়করণ সমিতির স্বেচ্ছাসেবক, ম্যাথ অলিম্পিয়াড ভলান্টিয়ার্স (মুভার্স), গণিত অলিম্পিয়াডের বর্তমান ও সাবেক খুদে শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। পরে সবার অংশগ্রহণে পাই কেক কাটা, খাওয়া ও পাই আনন্দ আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হয় অনুষ্ঠান।

apmoimoimo-logo-2017