থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় ৫৬তম আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশ দলের অংশগ্রহণ উপলক্ষে গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করছেন অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী l ছবি: প্রথম আলো

থাইল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় ৫৬তম আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে বাংলাদেশ দলের অংশগ্রহণ উপলক্ষে গতকাল রাজধানীর একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা করছেন অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী l ছবি: প্রথম আলো

....................................................

থাইল্যান্ডের চিয়াংমাই শহরে অনুষ্ঠেয় ৫৬তম আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে (আইএমও) যোগ দিতে আজ রাতে রওনা দিচ্ছে বাংলাদেশের ছয়জন খুদে গণিতবিদ। ৯ জুলাই শুরু হবে এই অলিম্পিয়াড। গণিতের এই মহাযজ্ঞে অংশ নেওয়া খুদে গণিতবিদদের গতকাল সোমবার ঢাকার এক হোটেলে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়। ছয় খুদে গণিতবিদ হলো সিলেট এমসি কলেজের আসিফ-ই-ইলাহী, ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজের আদিব হাসান ও মো. সানজিদ আনোয়ার, সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজের সাজিদ আখতার, নটর ডেম কলেজের মো. সাব্বির রহমান এবং বরিশাল জিলা স্কুলের এ এম নাঈমুল ইসলাম।
সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সভাপতি অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী বিস্তারিত জানান। তিনি বলেন, ‘ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশ আইএমওতে ভালো করছে। এটা আমাদের জন্য ভালো খবর। পাশাপাশি গণিত অলিম্পিয়াডের অনুকরণে বাংলাদেশে বর্তমানে বিভিন্ন বিষয়ের অলিম্পিয়াডও হচ্ছে।’
সংবাদ সম্মেলনে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইদুল হাসান বলেন, ‘আমরা খুশি এবং গর্বিত যে গত ১০ বছরেরও বেশি সময় ধরে আমরা এ ব্যতিক্রমী উদ্যোগটির সঙ্গে যুক্ত আছি।’ তিনি আশা করেন, ‘বিগত সময়ের চেয়ে ভবিষ্যতে আমাদের শিক্ষার্থীরা আরও ভালো করবে।’
প্রথম আলোর সহযোগী সম্পাদক আব্দুল কাইয়ুম বলেন, এই তরুণেরাই আগামী দিনের বাংলাদেশ। এরাই আগামী দিনে বিশ্বের মাঝে বাংলাদেশকে তুলে ধরবে। জ্ঞানভিত্তিক সমাজ তৈরিতে এ ধরনের উদ্যোগ খুবই দরকার। এ কারণেই প্রথম আলো এ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত আছে।
সংবাদ সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সহসভাপতি অধ্যাপক মুনিবুর রহমান চৌধুরী, সদস্য অধ্যাপক আনোয়ার হোসেন, গণিতবিদ অধ্যাপক খোদাদাদ খান, অধ্যাপক লুৎফুজ্জামান এবং গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির সাধারণ সম্পাদক মুনির হাসান।
বাংলাদেশের ছয় প্রতিযোগীর দলনেতা বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড দলের কোচ মাহবুব মজুমদার গত শনিবার থাইল্যান্ডে পৌঁছেছেন। উপদলনেতা মুনির হাসান ছয় শিক্ষার্থীকে নিয়ে আজ রওনা দেবেন।
চলতি বছর সারা দেশে ২৪টি আঞ্চলিক গণিত উৎসবে অংশ নেয় সারা দেশের প্রায় ৩০ হাজার শিক্ষার্থী। আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডে বিগত ১০ বারে অংশ নেওয়া বাংলাদেশ গণিত দল এ পর্যন্ত দুটি রৌপ্যপদক, ১০টি ব্রোঞ্জপদক ও ২০টি সম্মানজনক স্বীকৃতি অর্জন করেছে। এ ছাড়া গণিত অলিম্পিয়াডের ওয়েবসাইটে www.matholympiad.org.bd, গণিত অলিম্পিয়াডের অফিশিয়াল ফেসবুক ফ্যান পেজে (www.facebook.com/ BdMOC) অলিম্পিয়াডের আপডেট পাওয়া যাবে। বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির উদ্যোগে এ আয়োজনের পৃষ্ঠপোষকতা করছে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড এবং বাস্তবায়নে রয়েছে প্রথম আলো।