বাংলাদেশের আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াড (আইএমও) শেষ হয়েছে আহসান আল মাহীরের ব্রোঞ্জ পদক প্রাপ্তির মধ্য দিয়ে। স্থানীয় সময় গতকাল শুক্রবার রাতে ইংল্যান্ডের বাথ শহরে মেডবল নির্ধারণী সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে বাংলাদেশ এই একটি ব্রোঞ্জ পদক পেয়েছে। দলের চারজন সদস্য পেয়েছেন সম্মানজনক স্বীকৃতি।

দলের বাকি সদস্য মাশরুর হাসান ভূঁইয়া পেয়েছেন ৪ নম্বর। মোট ৭৬ নম্বর পেয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ৬৭। গত বছর প্রথম স্বর্ণপদক ও ১১৪ নম্বর পেয়ে বাংলাদেশের দলীয় অবস্থান ছিল ৪১তম।

২৪২–এর মধ্যে ২২৭ এবং ৬টি করে স্বর্ণপদক জিতে এবারের গণিত অলিম্পিয়াডে যৌথভাবে শীর্ষস্থান পেয়েছে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র। ১ নম্বর কম পেয়ে তৃতীয় হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া। সবাইকে চমকে দিয়ে চতুর্থ স্থানে উঠে এসেছে উত্তর কোরিয়া।

আমাদের প্রতিবেশীদের মধ্যে একটি স্বর্ণপদক ও ৪টি রৌপ্যপদক নিয়ে ভারতের অবস্থান ১৫তম। ২০১২ সালের পর ভারত আবার স্বর্ণপদক লাভ করেছে। শ্রীলঙ্কা ৬৯তম, পাকিস্তান ৮৩তম, নেপাল ৯৩তম ও মিয়ানমার ৯৭তম স্থান অধিকার করেছে। মোট ১১২টি দেশের ৬২১ জন শিক্ষার্থী দুই দিনের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। এর মধ্যে মোট ছয়জন খুদে গণিতবিদ সব সমস্যার নিখুঁত সমাধান করে ৪২–এর মধ্যে ৪২ পেয়েছে। তাদের মধ্যে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের দুজন, পোল্যান্ডের একজন ও দক্ষিণ কোরিয়ার একজন রয়েছে।

ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের পৃষ্ঠপোষকতায় প্রথম আলোর ব্যবস্থাপনায় দেশজুড়ে অনুষ্ঠিত গণিত উৎসবের মধ্য থেকে বাংলাদেশ দলের সদস্যদের নির্বাচিত করেছে বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটি।