করোনা বাস্তবতায় এবার আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের (আইএমও) পরীক্ষা ভার্চ্যুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল সোমবার বাংলাদেশ সময় বেলা দেড়টা থেকে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত টানা সাড়ে চার ঘণ্টা প্রথম দিনের পরীক্ষায় কম্বিনেটরিকস, বীজগণিত ও জ্যামিতির ওপর তিনটি গাণিতিক সমস্যা সমাধান করতে দেওয়া হয় প্রতিযোগীদের।

বাংলাদেশের ছয় প্রতিযোগী ঢাকা, ময়মনসিংহ, কুষ্টিয়া এবং ভারতের দিল্লি থেকে এ বছর ৬২তম আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে। দলের সদস্যরা হলো মো. মারুফ হাসান, তাহমিদ হামীম চৌধুরী, মো. ফোয়াদ আল আলম, তাহজিব হোসেন খান, আদনান সাদিক ও নুজহাত আহমেদ।

ঢাকা কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী তাহমিদ হামীম চৌধুরী, মো. ফোয়াদ আল আলম

 

কুষ্টিয়া কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী আদনান সাদিক

 

ময়মনসিংহ কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী মো. মারুফ হাসান ও তাহজিব হোসেন খান

 

ভারতের দিল্লি কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী নুজহাত আহমেদ


করোনা মহামারির কারণে এবার আইএমও প্রতিযোগীরা নিজ নিজ দেশ থেকে ভার্চ্যুয়ালি অংশ নিচ্ছে। গণিত অলিম্পিয়াডের দ্বিতীয় দিনের পরীক্ষা আজ (মঙ্গলবার) একই সময়ে অনুষ্ঠিত হবে। এবার গণিত অলিম্পিয়াডের আয়োজক দেশ রাশিয়া।


পরীক্ষা শেষে উত্তরপত্রের মূল্যায়ন ও আয়োজক দেশের সঙ্গে সমন্বয়ের পর ২৪ জুলাই সমাপনী অনুষ্ঠানে ফলাফল ঘোষণা করা হবে।


ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের পৃষ্ঠপোষকতায় ও প্রথম আলোর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটি দেশজুড়ে স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে নানা ধাপে গণিত দলের সদস্যদের নির্বাচন করে।