All the latest activities

দিনাজপুর ভেন্যু অঞ্চলের ফলাফল

গণিত অলিম্পিয়াড ২০২৩ দিনাজপুর ভেন্যু অঞ্চলের বিজয়ীদের তালিকা

দিনাজপুরে শীতের সকালে গণিত উৎসব, শিক্ষার্থীদের ভিড়

কুয়াশায় ঢেকে আছে চারপাশ। সড়‌কে গা‌ড়ি চল‌ছে হেডলাইট জ্বা‌লি‌য়ে। পৌষের শীত জেঁকে বসেছে উত্তরের জেলা দিনাজপুরে। এর মধ্যেই দিনাজপুর প‌লি‌টেক‌নিক ইন‌স্টি‌টিউট মা‌ঠে শুরু হয়েছে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক-প্রথম আলো গণিত উৎসবের আঞ্চলিক পর্ব। হাড়কাঁপানো শীত উপেক্ষা করেই প‌লি‌টেক‌নিক ইন‌স্টি‌টিউট মা‌ঠে গণিতপ্রেমী শিক্ষার্থীরা ভিড় করছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল নয়টায় দিনাজপুর সার‌দেশ্বরী বা‌লিকা উচ্চবিদ্যাল‌য়ের ‌শিক্ষার্থী‌দের জাতীয় সংগীত প‌রি‌বেশনার মধ্য দি‌য়ে উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। এ সময় জাতীয় পতাকা উত্তোলন ক‌রেন প‌লি‌টেক‌নিক ইন‌স্টি‌টিউ‌টের অধ্যক্ষ ওয়াদুদ মণ্ডল, গণিত অলি‌ম্পিয়াডের পতাকা উত্তোলন ক‌রেন ডাচ্‌–বাংলা ব্যাংকের দিনাজপুর শাখার ব্যবস্থাপক অপূর্ব রায়, আন্তর্জা‌তিক গ‌ণিত অলি‌ম্পিয়াডের পতাকা উত্তোলন ক‌রেন বীরগঞ্জ সরকা‌রি ক‌লে‌জের অধ্যক্ষ মাসুদুল হক।

শিক্ষার্থী‌দের জাতীয় সংগীত প‌রি‌বেশনার মধ্য দি‌য়ে উৎসবের উদ্বোধন করা হয়
শিক্ষার্থী‌দের জাতীয় সংগীত প‌রি‌বেশনার মধ্য দি‌য়ে উৎসবের উদ্বোধন করা হয়.ছবি: মঈনুল ইসলাম

এ সময় সং‌ক্ষিপ্ত আলোচনায় মাসুদুল হক ব‌লেন, ‘প্রাত্যহিক জীব‌নে সবাইকে গ‌ণিত ‌নি‌য়ে চ‌লতে হয়। তবে অনেকেই আবার গ‌ণিত‌কে ভয়‌ পায়। ইতিহাস পাতায় দেখা যায়, প্রাচীন গ্রিক সমা‌জব্যবস্থায়ও গ‌ণিত অলি‌ম্পিয়াড হ‌তো। সেই সম‌য়ে বড় বড় দার্শ‌নিক গ‌ণি‌তের চর্চা কর‌তেন। তখন বাঙা‌লিদের মধ্যে যাঁরা গ‌ণিত চর্চা কর‌তেন, তাঁদেরও নিজস্ব কিছু পদ্ধ‌তি ছিল। বর্তমানে গণিত নিয়ে এ ধরনের বড় আয়োজন খুদে শিক্ষার্থীদের গ‌ণিতের প্রতি আগ্রহী করছে। এই শীতের সকালে দূর–দূরান্ত থেকে আসা শিক্ষার্থীদের ব্যাপক উপস্থিতি, সেটাই প্রমাণ করে।’

ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংকের দিনাজপুর শাখার ব্যবস্থাপক অপূর্ব রায় বলেন, ‘দুই দশক ধ‌রে ডাচ্‌–বাংলা ব্যাংক–প্রথম আলোর উদ্যোগে এই গ‌ণিত উৎস‌বের আ‌য়োজন শিক্ষার্থী‌দের ম‌ধ্যে কিছুটা হ‌লেও গ‌ণিতের ভী‌তি দূর কর‌তে পে‌রে‌ছে। সৃজনশীল বাংলা‌দেশ গড়‌তে এ ধর‌নের আ‌য়োজন অনেকটা সহায়ক হ‌বে।’

পরীক্ষাকে‌ন্দ্রের আসন খুঁজছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা
পরীক্ষাকে‌ন্দ্রের আসন খুঁজছেন শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা . ছবি: মঈনুল ইসলাম

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শে‌ষে মাইকে ভে‌সে আসে, ‘আমরা কর‌ব জয়, আমরা কর‌ব জয়।’ গা‌নের তালে সা‌রিবদ্ধভা‌বে পরীক্ষাকে‌ন্দ্রে প্রবেশ ক‌রে শিক্ষার্থীরা। তবে সকাল সাতটা থে‌কে শিক্ষার্থীরা প‌লি‌টেক‌নিক ইন‌স্টি‌টিউট মা‌ঠে আসতে শুরু করে। ঘণ্টাখা‌নে‌কের ম‌ধ্যে পু‌রো মাঠ মিলনমেলায় পরিণত হয়। দিনাজপুর ছাড়াও পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁও জেলার বি‌ভিন্ন স্কু‌লের শিক্ষার্থীরা এ উৎসবে অংশ নিচ্ছে।

ছে‌লে‌ ফাহ‌মিদ মু‌জিব‌কে সঙ্গে নি‌য়ে ঠাকুরগাঁও থে‌কে পরীক্ষাকে‌ন্দ্রে এসে‌ছেন ফের‌দৌস আরা মু‌জিব। তিনি ব‌লেন, তাঁর ছে‌লে ফাহ‌মিদ নবম শ্রেণি‌তে প‌ড়ে। ছোটবেলা থেকেই ফাহ‌মিদের গ‌ণি‌তের প্রতি আগ্রহ। তাই গণিত উৎসবে যোগ দিতে গতকাল বুধবার বি‌কে‌লেই তিনি ছেলেকে নিয়ে দিনাজপু‌রে এসে‌ আত্মী‌য়ের বাসায় উঠেছেন।

আ‌য়োজকেরা জানান, এবার পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, দিনাজপুর থে‌কে প্রাথমিক, মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক ক্যাটাগ‌রি‌তে উৎস‌বে অংশ নি‌য়ে‌ছে ৪২৩ শিক্ষার্থী। তবে অংশগ্রহণকারী‌দের ম‌ধ্যে মাধ্যমিক বিভাগের শিক্ষার্থীর সংখ্যা বে‌শি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ভেন্যু অঞ্চলের ফলাফল

গণিত অলিম্পিয়াড ২০২৩ ব্রাহ্মণবাড়িয়া ভেন্যু অঞ্চলের বিজয়ীদের তালিকা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় শীত উপেক্ষা করে গণিত উৎসব শুরু

‌‘গণিতের ভয় কীভাবে দূর করব?’ ‘পজিটিভ ও নেগেটিভ সংখ্যার মধ্যে পার্থক্য কী?’ ব্রাহ্মণবাড়িয়া আঞ্চলিক গণিত উৎসবে এমন সব প্রশ্ন করে সহজ সমাধান পেয়েছে শিক্ষার্থীরা। ‘গণিত শেখো, স্বপ্ন দেখো’ স্লোগানে ডাচ্-বাংলা ব্যাংক-প্রথম আলো গণিত উৎসবের আঞ্চলিক পর্বের সপ্তম আসর গতকাল বুধবার বসেছিল ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। সেখানে প্রশ্নোত্তর পর্বে এ রকম নানা প্রশ্ন করে অতিথিদের কাছ থেকে উত্তর জেনে নেয় তারা।

সকালে শীত উপেক্ষা করে নরসিংদী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ৯টি উপজেলা থেকে ৩৩৬ শিক্ষার্থী উৎসবস্থল ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজে উপস্থিত হয়। এই কলেজের পাশেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিয়াজ মুহম্মদ উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠ।

সকাল সাড়ে নয়টার দিকে সেখানে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মাধ্যমে উৎসবের উদ্বোধন করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ বিভূতিভূষণ দেবনাথ। তিনি বলেন, প্রথম আলো গণিত উৎসবের পাশাপাশি অসংখ্য সামাজিক কাজকর্ম করে যাচ্ছে। গণিত উৎসব বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে। এই ব্যতিক্রমী ও সুন্দর কাজটি প্রথম আলো শুরু থেকেই করে যাচ্ছে।

ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংক-প্রথম আলো গণিত উৎসবে শিক্ষার্থীরা দুই হাত তুলে মাদককে ‘না’ বলে। গতকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজে
ডাচ্‌-বাংলা ব্যাংক-প্রথম আলো গণিত উৎসবে শিক্ষার্থীরা দুই হাত তুলে মাদককে ‘না’ বলে। গতকাল ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজে. ছবি: এম সাদেক

অধ্যাপক বিভূতিভূষণ দেবনাথ বলেন, ‘গণিত জীবনের একটি অপরিহার্য অংশ। গণিত ছাড়া আমাদের জীবন একেবারেই চলে না। পাশাপাশি আমাদের রয়েছে গণিতভীতি। এ কারণে দেখা যায়, গণিতে প্রতিবছর অনেক শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হচ্ছে। গণিত আসলে ভয়ের কোনো বিষয় নয়। গণিত যুক্তিনির্ভর একটি বিষয়। এই যুক্তির জন্যই আমাদের গণিত শিখতে হবে, জীবনে চর্চা করতে হবে। গণিতের ভয় দূর করতে হবে।’

উৎসবে বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াডের পতাকা উত্তোলন করেন ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের ব্রাহ্মণবাড়িয়া শাখার ব্যবস্থাপক ও ব্যাংকটির সিনিয়র অ্যাসিস্ট্যান্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট মো. আরিফুল হক, আন্তর্জাতিক গণিত অলিম্পিয়াডের পতাকা উত্তোলন করেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ হামজা মাহমুদ। এ সময় জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেন আসিফ টিউটোরিয়াল অ্যান্ড হাইস্কুলের শিক্ষার্থী অনিশা ইসলাম, পৃথা চ্যাটার্জি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া বন্ধুসভার সদস্যরা।

সকাল ১০টায় ১ ঘণ্টা ১৫ মিনিটের পরীক্ষা শুরু হয়। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গণিতের গান দিয়ে সাংস্কৃতিক পরিবেশনা শুরু হয়। সাংস্কৃতিক পর্বটি সঞ্চালনা করেন বন্ধুসভার সদস্য করবি চৌধুরী। বন্ধুসভার সদস্যরা বিভিন্ন সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় অংশ নেন। বন্ধুসভার সদস্য হোসাইন মোহাম্মদ দুটি একক নৃত্য; সবুজ মোল্লা, হোসাইন মেহাম্মদ, সুবর্ণা আক্তার ও তিশা আক্তার দলীয় নৃত্য পরিবেশন করেন। কবিতা আবৃত্তি করেন শেখ তানিয়া, নূপুর ও উজ্জল মোল্লা।

উৎসবে প্রশ্নোত্তর পর্ব সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটির একাডেমিক কাউন্সিলর প্রকৌশলী আহমেদ শাহরিয়ার ও প্রকৌশলী আশরাফুল আল শাকুর।

গণিত নিয়ে শিক্ষার্থীদের প্রশ্নের উত্তর দেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষ হামজা মাহমুদ, গণিত বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক আবদুল কুদ্দুস, মোহাম্মদ কামাল হোসেন ও সহকারী অধ্যাপক শফিকুল ইসলাম, রসায়নের সহকারী অধ্যাপক আবদুল খালেক, পদার্থবিজ্ঞানের সহকারী অধ্যাপক হাবিবুর রহমান ও চিনাইর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব অনার্স কলেজের গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক হরিপদ সাহা। দুই সঞ্চালকও বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন।

প্রশ্নোত্তর পর্ব চলাকালে সুন্দর প্রশ্নের জন্য শিক্ষার্থীদের বিজ্ঞানচিন্তা ও কিশোর আলো ম্যাগাজিন পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হয়। প্রশ্নোত্তর পর্বের শেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সরকারি কলেজের উপাধ্যক্ষের হাতে ভেন্যু স্মারক তুলে দেন প্রকৌশলী আহমেদ শাহরিয়ার ও প্রথম আলোর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নিজস্ব প্রতিবেদক শাহাদৎ হোসেন। এ সময় মাদক, মুখস্থ ও মিথ্যাকে ‘না’ বলার শপথ পড়ানো হয় শিক্ষার্থীদের।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া আঞ্চলিক গণিত উৎসবে প্রাইমারি, জুনিয়র, সেকেন্ডারি ও হায়ার সেকেন্ডারি ক্যাটাগরিতে বিজয়ী হয়েছে ২৫ শিক্ষার্থী। এই শিক্ষার্থীদের মধ্যে সনদ, মেডেল ও টি-শার্ট বিতরণ করা হয়েছে। তারা ঢাকায় জাতীয় গণিত উৎসবে অংশ নেওয়ার সুযোগ পাবে। ঢাকায় আগামী ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠেয় জাতীয় গণিত উৎসবের জন্য শিক্ষার্থী বাছাইয়ে এভাবে মোট ২০টি আঞ্চলিক পর্ব অনুষ্ঠিত হবে।

ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের পৃষ্ঠপোষকতায় ও প্রথম আলোর ব্যবস্থাপনায় গণিত উৎসবের আয়োজন করছে বাংলাদেশ গণিত অলিম্পিয়াড কমিটি। উৎসবের সব খবর মিলবে গণিত অলিম্পিয়াডের ওয়েবসাইট এবং অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে

নারায়ণগঞ্জ ভেন্যু অঞ্চলের ফলাফল

গণিত অলিম্পিয়াড ২০২৩ নারায়ণগঞ্জ ভেন্যু অঞ্চলের বিজয়ীদের তালিকা

নারায়ণগঞ্জে উৎসবমুখর পরিবেশে গণিত উৎসব চলছে

নারায়ণগঞ্জে আনন্দমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল চলতি বছরের ডাচ্–বাংলা ব্যাংক-প্রথম আলো গণিত উৎসবের ষষ্ঠ আঞ্চলিক পর্ব। গতকাল সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের আমলাপাড়ার নারায়ণগঞ্জ আইডিয়াল স্কুলে বসে এই উৎসবের আয়োজন। ‘গণিত শেখো, স্বপ্ন দেখো’ স্লোগানে বাছাই অলিম্পিয়াড থেকে নির্বাচিত তিন শতাধিক শিক্ষার্থী এই পর্বে অংশ নেয়।

কুষ্টিয়া ভেন্যু অঞ্চলের ফলাফল

গণিত অলিম্পিয়াড ২০২৩ কুষ্টিয়া ভেন্যু অঞ্চলের বিজয়ীদের তালিকা

শীত উপেক্ষা করে গণিতের জয়োৎসবে

গণিত উৎসবের কুষ্টিয়া আঞ্চলিক পর্বের আসর বসেছিল কুষ্টিয়া জিলা স্কুলে। সেখানে ৪৫৩ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। এর মধ্যে ৪৩ শিক্ষার্থী ঢাকায় জাতীয় উৎসবে যাওয়ার জন্য নির্বাচিত হয়।

Search